শনিবার, মার্চ ২জাতির কথা বলে
Shadow

মোবাইলে ভূমিকম্পের আগাম খবর

শেয়ারকয়েক দিন আগেই শক্তিশালী ভূমিকম্পে কেঁপে উঠেছিল ঢাকাসহ সারা দেশ। বিশ্বে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ক্রমাগত উন্নততর হলেও ভূমিকম্পের পূর্বাভাস দিতে বেশ বেগ পেতে হয় আবহাওয়াবিদদের। তবে প্রযুক্তিবিদরা হাতের মুঠোতে থাকা মুঠোফোনকেই বেছে নিয়েছেন ভূমিকম্পের সতর্কতা প্রদানের জন্য। জনপ্রিয় দুই অপারেটিং সিস্টেম আইওএস এবং অ্যানড্রয়েড প্ল্যাটফরমে বিভিন্ন ধরনের ভূমিকম্প ট্র্যাক করার অ্যাপের মাধ্যমে আগাম সতর্কতা দেন আবহাওয়াবিদরা।
পৃথিবীর যেকোনো জায়গায় ভূমিকম্প হলে সঙ্গে সঙ্গে ট্র্যাক করা যায় এই অ্যাপের মাধ্যমে। নিজের এলাকায় ভূমিকম্পের আশঙ্কা থাকলেও সেটির পূর্বাভাস আগেভাগেই জানা যাবে অ্যাপটি ইনস্টল করা থাকলে। আবার ছোটখাটো সব ভূমিকম্পের পূর্বাভাসের ঝামেলা পোহাতে না চাইলে আছে নোটিফিকেশন বন্ধের অপশনও।  Region, Layout, Time frame ইত্যাদি ফিল্টারের মাধ্যমে নিজের মতো করে গুছিয়ে নিতে পারেন।

ইউনাইটেড স্টেটস জিওলজিক্যাল সার্ভের (ইউএসজিএস) থেকে তথ্য নিয়ে অ্যাপটি ভূমিকম্পের রিয়াল টাইম তথ্য প্রদান করে। প্লে স্টোর ও অ্যাপস্টোর দুই জায়গায়ই পাবেন এই অ্যাপ। লিংক:
https://play.google.com/store/apps/details?id=com.jrustonapps.myearthquakealerts (প্লে স্টোর)
https://apps.apple.com/us/app/earthquake-alerts-and-map/id632040358 (আইওএস
আর্থকোয়াক নেটওয়ার্ক
অ্যাপটিকে অনেকটা ভূমিকম্পের সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বলা চলে। ভূমিকম্প হলে ব্যাবহারকারীরা এখানে নিজেদের অভিজ্ঞতার বর্ণনা দিতে পারে, পারে চ্যাট করতেও।
https://play.google.com/store/apps/details?id=com.finazzi.distquake (প্লে স্টোর)
https://apps.apple.com/us/app/earthquake-network/id1449893235 (আইওএস)
মাইশেক
মূলত সেন্সর ব্যবহার করে নির্দিষ্ট স্থানের ভূমিকম্প শনাক্ত করতে এবং শনাক্তকৃত তথ্যের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদের রিয়াল টাইম সতর্ক করে অ্যাপটি। এ ছাড়া পুরো কমিউনিটির কাছে ভূমিকম্পের খবর পৌঁছাতেও সাহায্য করে মাইশেক।
https://play.google.com/store/apps/details?id=edu.berkeley.bsl.myshake (প্লে স্টোর)
https://apps.apple.com/us/app/myshake/id1467058529 (আইওএস)
কুয়েকফিড
নিজের ইচ্ছামতো কাস্টমাইজ করে বিভিন্ন এলাকার ভূমিকম্পের তীব্রতা, মাত্রা সব কিছুই জানা যায় অ্যাপটির মাধ্যমে। ১৯০০ সালের পর থেকে যেকোনো বড় আকারের ভূমিকম্পের তথ্যও পাওয়া যাবে অ্যাপটিতে। বাড়তি হিসেবে আছে দাবানল, হারিকেন এবং অগ্ন্যুৎপাতের মতো প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ঐতিহাসিক মানচিত্র। বর্তমানে আইওএস প্ল্যাটফরমের এক নম্বর ভূমিকম্পবিষয়ক অ্যাপ এটি। লিংক:
https://apps.apple.com/us/app/quakefeed-earthquake-tracker/id403037266 (আইওএস) 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *